Type Here to Get Search Results !

বিশ্বজিৎ দে, বাংলার এক উদীয়মান দক্ষ ফুটবল প্রশাসক

বিশ্বজিৎ দে, বাংলার এক উদীয়মান দক্ষ ফুটবল প্রশাসক


ই - স্পোর্টস নিউজ ডেস্ক: বাঙালির রক্তে ফুটবল, নতুন করে এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। কিন্তু সেই আবেগময় ফুটবল যখন হয়ে ওঠে বাঙালির জীবন মরণেরও স্বপ্ন তখন অন্য এক রূপ কথার গল্প বোনে। সেরকমই এক স্বপ্নের জাল বুনে কিশোর বয়সে ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন বিশ্বজিৎ দে। শুরুটা হয়েছিল বেশ ভালোই। বিভিন্ন ক্লাবে খেলার অভিজ্ঞতা অর্জনের পাশাপাশি চোট এবং আঘাত তাকে মাঠের বাইরে নিয়ে আসে। আর ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন থেকে বঞ্চিত করে তাকে।  তবুও ফুটবলকে আঁকড়ে ধরে স্বপ্ন দেখা শেষ হয় না বিশ্বজিৎ দের। পড়াশোনা পাশাপাশি সম্পন্ন করেন অডিও লজিস্ট এর ডিগ্রি। একজন সফল অডিও-লজিস্ট হিসেবে শুরু হয় তার আরেক জীবন। পাশাপাশি চলতে থাকে ব্যবসা। খুব যুবক বয়সেই তিনি ব্যবসায় হাত পাকান  শুরু করেন।


ইয়ার ইন কেয়ার নামে তার সংস্থার মাধ্যমে। যে সংস্থাটি তার নিজের হাতেই গড়া। এর আগে অনেক ভারতীয় কোম্পানির উচ্চপদে আসীন থেকে চাকরি থেকে সরে আসেন এবং নিজের ব্যবসা মন দেন।  কিন্তু তখনও ফুটবল মন থেকে মুছে ফেলতে পারেননি এই যুবক। শেষ পর্যন্ত তিনি খুলে ফেলেন একটি ফুটবল ক্লাব । ছোটদের নিয়ে সেই ফুটবল ক্লাবের পথ চলা শুরু হয় শ্যামনগরের বুকে। ২০০৮ সাল থেকে তিনি স্বপ্ন দেখতে শুরু করেন নিজের একটি ফুটবল ক্লাব পরিচালনার জন্য। আর সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করার জন্য তিনি প্রথমে একটি কোচিং ক্যাম্প খোলেন শ্যামনগরে । সেই কোচিং ক্যাম্প আজ ধীরে ধীরে ডানা মেলেছে শ্যামনগরের বুকে। নিজের অভিজ্ঞতা কে কাজে লাগিয়ে ধীরে ধীরে ফুটবল প্রশাসক হিসেবে নিজেকে মেলে ধরতে শুরু করেন তিনি।


নিজের হাতে ঘাস কাটছেন বিশ্বজিৎ দে



শেষপর্যন্ত ২০১৮ সালের পূর্ণাঙ্গভাবে একটি ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেন তিনি যার নাম শ্যামনগর অ্যারোজ ইউনাইটেড এফসি। ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত করেন প্রাক্তন ফুটবলার থেকে শুরু করে দক্ষ প্রশিক্ষকদের। ফলে অচিরেই শ্যামনগর এরোস ইউনাইটেড এফসি ডানা মিলতে শুরু করে ফুটবলের আঙ্গিনায়।

      ফুটবলারদের সাথে মাঠে
শত ব্যস্ততার পরেও লক্ষ্যে অবিচল


ফুটবল প্রশাসক হিসেবে নিজের ক্লাবকে একটি উচ্চতায় পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন ক্লাব এবং অর্গানাইজেশনের সঙ্গে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন। একজন দক্ষ প্রশাসক হিসেবে তার দক্ষ পরিচালনায় চার বছরের মধ্যেই শ্যামনগর অ্যারোস ইউনাইটেড জেলা ফুটবলে যেমন নিজেদেরকে তুলে ধরেছে তেমনি রাজ্য ফুটবলেও তারা নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে চলেছে।ইতি মধ্যে পদার্পণ করেছে কলকাতা ফুটবল লিগেও। আর এই সাফল্যের প্রধান কান্ডারী প্রশাসক বিশ্বজিৎ দে।


বিশ্বজিৎ দে বর্তমানে বাংলা তথা ভারতীয় ফুটবলের অন্যতম শ্রেষ্ঠ প্রশাসক জয়দীপ মুখার্জির সঙ্গে হাত মিলিয়ে বাংলা ফুটবলের উন্নতির জন্য বদ্ধপরিকর হয়েছেন। তাদের যৌথ উদ্যোগে ফুটবল নতুন মাত্রা পেতে চলেছে আগামী দিনে তার আভাস মিলেছে ইতিমধ্যেই।


বিশ্বজিতের কর্মকাণ্ড শুধুমাত্র শ্যামনগর তথা ২৪ পরগনা জুড়ে নয় জেলার চৌহদ্দি পেরিয়ে হুগলি এবং নদীয়াতেও খুব শীঘ্রই ডানা মিলতে চলেছে অ্যারোস ইউনাইটেড এফসি। খুব শীঘ্রই শাখা প্রশাখা কুলতে চলেছে বিভিন্ন জায়গায়। আর সেখানেই একজন ফুটবল প্রশাসক হিসেবে একজন দক্ষ ক্রীড়া প্রশাসক হিসেবে নিজেকে নতুন মাত্রায় নিয়ে যাচ্ছেন তিনি।


একজন ক্রীড়া প্রশাসক যখন হৃদয় দিয়ে কোন প্রতিষ্ঠানকে আঁকড়ে ধরেন তখন সেই প্রতিষ্ঠান সাফল্য পেতে বাধ্য হয় কারণ নিজের ব্যবসা টাকা দিয়েই অ্যারোজ ইউনাইটেডকে ধীরে ধীরে বড় করে চলেছেন তিনি। সংসারের ঘাত প্রতিঘাতকে পেরিয়ে অক্লান্ত পরিশ্রম আর নিয়োজিত সময়ে ব্যবসায় দিয়ে সেখান থেকেই কষ্ট করে চলছে তার এই অ্যারোজ ইউনাইটেড ফুটবল একাডেমি। যে একাডেমিতে এই মুহূর্তে ১৩০ জন নথিভুক্ত ফুটবলার ফুটবল প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকেন নিয়মিত।


একাডেমীকে আধুনিক রুপ দেওয়ার জন্য সব রকম ভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।  তার অ্যাকাডেমিতে রয়েছেন জহর দাসের মতন প্রথিতযশা ফুটবল প্রশিক্ষক এবং আরো অনেকেই।  একজন দক্ষ প্রশাসক হিসেবে ক্লাবকে সর্বোচ্চ শিখরে নিয়ে যেতে যা যা করা দরকার ঠিক তাই করে চলেছেন তিনি এবং তার মাথায় রয়েছে আই এফ এর প্রাক্তন সচিব জয়দীপ মুখার্জির বিশ্বস্ত হাত কারণ মুখার্জি নিজে একজন সুদক্ষ ফুটবল প্রশিক্ষক তাই তিনি চিনে নিতে ভুল করেননি, আর একজন নবাগত ফুটবল প্রশাসককে। কথায় বলে রতনে রতন চেনে….।  


সত্যিই তো তাই বাংলার ফুটবলের অন্যতম রূপকার হিসেবে  জয়দ্বীপ মুখার্জি উঠে এসেছিলেন দ্রুত। কিন্তু নানান প্রতিবন্ধকতার কারণে তাকে সরে যেতে হয়েছে কিন্তু ফুটবল প্রশাসক হিসেবে ময়দানে তিনি বিরাজমান। আর সেই দক্ষ প্রশাসক আরেকজন দক্ষ প্রশাসককে খুঁজে নেবেন এটাই স্বাভাবিক। আশা করব আগামী দিনে তাদের এই মেলবন্ধন বাংলার ফুটবলকে অন্য মাত্রায় পৌঁছে দেবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Sovrn

ads